Forrsa Hoyar Upay - ফর্সা হওয়ার উপায় (৫ টি ঘরোয়া পদ্ধতি) Fairness Tips in Bengali

Forrsa Hoyar Upay - ফর্সা হওয়ার উপায় (৫ টি ঘরোয়া পদ্ধতি) Fairness Tips in Bengali - Forsa Howar Tips or Opay in Bangla. 

Whether at home or outside in the space of daily work, you can quickly make your skin more beautiful with the ingredients in the house.  Because while working in the kitchen, you can take care of your skin at the beginning of the day or at the end of the day by using any of the ingredients there.  Let's take a look at the way to lighten the skin in a homely way:
Forrsa Hoyar Upay - ফর্সা হওয়ার উপায় (৫ টি ঘরোয়া পদ্ধতি) Fairness Tips in Bengali

প্রতিদিনের কাজের জায়গাতে ঘরে বা বাইরে, আপনি বাড়ির উপাদানগুলি দিয়ে আপনার ত্বকটি তাত্ক্ষণিকভাবে আরও সুন্দর করে তুলতে পারেন।  কারণ রান্নাঘরে কাজ করার সময় আপনি দিনের শুরুতে বা দিনের শেষে সেখানে কোনও উপাদান ব্যবহার করে আপনার ত্বকের যত্ন নিতে পারেন।  আসুন ঘরোয়া উপায়ে ত্বক হালকা করার উপায়টি একবার দেখুন:

১) লেবু দিয়ে পান সুন্দর ফর্সা ত্বক
কি কি উপাদান লাগবে :

পাতিলেবু : একটি

মধু : দু চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন?

একটি পাতিলেবু নিন।
সেটিকে কেটে লেবু থেকে সমস্ত রস বের করে নিন।
সেখান থেকে দু চামচ লেবুর রস এক চামচ জলে মেশান।
এবার এই মিশ্রণটি ত্বকের দাগ ছোপ যুক্ত জায়গায় লাগান।
লেবুর রস মধুর সাথে সম পরিমাণে মিলিয়েও মুখে লাগাতে পারেন।
এটি ত্বক থেকে যাবতীয় নোংরা এবং রোদের পোড়া দাগ তুলতে সাহায্য করবে।
মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করে তারপর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন
তবে এই মিশ্রণটি মুখে লাগানোর আগে অবশ্যই কানের পিছনে কিংবা গলায় লাগিয়ে দেখে নেবেন।
কিভাবে এটি ত্বকের সাহায্য করে?

For More Updates go to BDRong99.Com 

লেবুর মধ্যে থাকা ভিটামিন সি ত্বকের যেকোনো দাগ ছোপ কে পরিষ্কার করে ত্বককে স্বচ্ছ করে তোলে এবং ত্বকের শুষ্কতা কাটিয়ে তাকে আরও উজ্জ্বল করে তোলে। লেবুর মধ্যে থাকা ব্লিচিং উপাদান ত্বককে ভেতর থেকে দাগ ছোপ হীন করে তোলে। এছাড়াও রোদে পোড়া দাগও সহজেই হালকা করে। ত্বক যখনই উজ্জ্বল এবং স্বাস্থ্যসম্মত হয়ে উঠবে তখনই তা ফর্সা হয়ে উঠবে। (১)

২) ত্বক ফর্সা করতে হলুদের ব্যবহার

কি কি উপাদান প্রয়োজন :

কাঁচা হলুদ বা হলুদ গুঁড়ো : এক চামচ
লেবুর রস : ২ চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন?

কাঁচা হলুদ বেটে নিন কিংবা হলুদ গুঁড়ো এক চামচ নিন।
এবার তার সাথে দু চামচ লেবুর রস মিশিয়ে দিন।
লেবুর রস এবং হলুদ গুঁড়ো ভালো করে মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন।
এবার মিশ্রণটি মুখে ভালো করে লাগিয়ে নিন। মূলতঃ যেই সমস্ত জায়গাগুলিতে সূর্যের তাপে কালচে হয়ে গিয়েছে, সেই জায়গাগুলিতে ভালো করে লাগিয়ে নিন।
এরপর ১৫ মিনিট মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে মুখটা ভালো করে ধুয়ে নিন।
সপ্তাহে দুবার এই প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। তাহলে এক মাসের মধ্যে পার্থক্যটা নিজের চোখেই দেখতে পারবেন।
কিভাবে এটি ত্বকের সাহায্য করে?

হলুদের মধ্যে থাকা উপাদান ত্বকে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এবং আন্টি ইনফ্লামেটরি হিসেবে কাজ করে যা ত্বককে সমস্ত রকম জীবাণু থেকে রক্ষা করে। এছাড়াও হলুদের মধ্যে থাকা উপাদান ত্বককে দ্রুত প্রক্রিয়ায় ফর্সা করে তোলে। এটি ত্বককে ভেতর থেকে পরিষ্কার করে। এছাড়া ত্বক থেকে বার্ধক্যের ছাপ সরিয়ে দিয়ে ত্বককে সবসময় টান টান এবং উজ্জ্বল রাখতে সহায়তা করে। হলুদ মুখে লাগানোর পাশাপাশি দৈনন্দিন খালি পেটে এক টুকরো করে খাওয়া গেলে তা শরীরকে ভিতর থেকে শুদ্ধিকরণ ঘটায়। (২)

৩) দুধ ব্যবহার করে ত্বককে আরো ফর্সা করে তুলুন
কি কি উপাদান প্রয়োজন :

দুধ – ১ টেবিল চামচ
মধু – ১ চা চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন?

দুধ এবং মধুকে ভালো করে মিশিয়ে মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে নিন।
এরপর ১৫ মিনিট মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে রাখুন।
মিশ্রণটি শুকিয়ে গেলে উষ্ণ গরম জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।
ত্বক যদি খুব শুষ্ক থাকে সে ক্ষেত্রে দুধের বদলে দুধের সর মধুর সাথে মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।
এতে ত্বক আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।
সপ্তাহে প্রায় প্রতিদিনই এই মিশ্রণটি মুখে ব্যবহার করতে পারেন।
কিভাবে এটি ত্বকের সাহায্য করে?

দুধের মধ্যে উপস্থিত প্রাকৃতিক উপাদানগুলি ত্বকের রং কে ভিতর থেকে হালকা করে এবং ত্বককে বাইরে থেকে সুন্দর মসৃণ এবং আর্দ্র করে তোলে। দৈনিক দুধের ব্যবহারের ফলে ত্বক আরও লাবণ্যময় হয়ে ওঠে। এছাড়াও দুধ ত্বককে ফর্সা করে তুলতে সাহায্য করে। এবং এটি ফর্সা হওয়ার একটি সহজ উপায়। (৩)

৪) ত্বক ফর্সা করে তুলতে টমেটোর ব্যবহার
কি কি উপাদান প্রয়োজন :

টমেটো : দুটো
লেবুর রস : দুই চা চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন?

২টি টমেটো মিক্সিতে বেটে নিয়ে মিশ্রন থেকে টমেটোর রস বের করে নেবেন।
তারপর পরিমাণমতো টমেটোর রস নিয়ে তার মধ্যে লেবুর রস মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করবেন।
টমেটো- লেবুর মিশ্রণটি সারা মুখে লাগাবেন।
মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করবেন।
তারপর সাধারণ জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নেবেন।
সপ্তাহে রোজ স্নানের আগে এই মিশ্রণটি ব্যবহার করতে পারেন। এর ফলে সান ট্যান বা ত্বকের দাগ ছোপ কমে যাবে।
কিভাবে এটি ত্বকের সাহায্য করে?

টমেটোর মধ্যে থাকা উপাদান গুলি ত্বকের দাগ ছোপ কমিয়ে ত্বককে ভেতর থেকে ফর্সা এবং উজ্জ্বল করে তোলে। ত্বকের মধ্যে থাকা লাইকোপিন নামক উপাদান ত্বকে আর্দ্রতা প্রদান করে এবং ত্বকের ওপরে থাকা মৃত কোষগুলিকে সরিয়ে ত্বকের ট্যান দূর করতে সহায়তা করে। (৪)

৫) ত্বক ফর্সা করতে দইয়ের ভূমিকা
কি কি উপাদান প্রয়োজন :

টক দই : ২ টেবিল চামচ
মধু : ১ চা চামচ

কিভাবে ব্যবহার করবেন?

টক দই এবং মধু ভালো করে মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন।
এবার প্যাকটি পরিষ্কার ত্বকে লাগান।
১৫ মিনিট প্যাকটি লাগিয়ে রাখুন।
অল্প শুকিয়ে এলে সাধারণ জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
সপ্তাহে রোজ এই প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন।
এটি ত্বককে উজ্জ্বলতা বাড়াবে।

আজ এই পর্যন্তই,  
ধন্যবাদ সবাইকে।   
Close