উপায়: ১ ঘন্টা মিলন (সহবাস) | 1 Gonta Milon Korar Tips

উপায়: ১ ঘন্টা মিলন (সহবাস) | 1 Gonta Milon Korar Tips in Bangla |long time Love-Making tips (Bengali)  

  • কোন ট্যাবলেট খেলে এক ঘন্টা সহবাস করা যায়?
  • কি খেলে ঘন্টার পর ঘন্টা সহবাস করা যায়
  • কিভাবে বেশিক্ষণ সহবাস করা যায়
  • দীর্ঘক্ষণ মিলনের ট্যাবলেট নাম
  • সহবাস করার বিভিন্ন পদ্ধতি ছবি
  • সহবাসের আগে আদা খেলে কি হয়
  • বেশিক্ষণ সহবাস করার ঔষধ
  • কি খেলে শুক্রানু বাড়ে
  • মাত্র ১ টুকরো মুখে নিয়ে সহবাস করুন কমপক্ষে ১ ঘন্টা সহবাস করতে পারেবেন

কোন খাবার খেলে সহজে বীর্যপাত হয় না
বর্তমান জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাসের কারণে আমাদের জীবনে শিথিলতা আসছে। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় যদি থাকে এমন কিছু খাওয়ার যার মধ্যে রয়েছে জিনসিনোসাইড, তাহলে আপনার জীবনে ফিরে আসতে পারে যৌবন।

উপায়: ১ ঘন্টা মিলন (সহবাস) | 1 Gonta Milon Korar Tips
উপায়: ১ ঘন্টা মিলন (সহবাস) | 1 Gonta Milon Korar Tips

নারী-পুরুষের যে কোনোা যৌন সমস্যার (যৌন দুর্বলতা, সন্তান না হওয়া, সহবাসে ব্যর্থতা, দ্রুত বীর্যপাত, মেহ-প্রমেহ) সমাধানে নাইট কিং ও নাইট কিং গোল্ড কার্যকরী। জেনে নিন, এ জাতীয় ৫টি ভেষজ খাবারের নাম, যা Tablets চাইতে বেশি উত্তেজক-

উপায়: ১ ঘন্টা মিলন (সহবাস) | 1 Gonta Milon Korar Tips

১। সজনে ডাঁটা : এক গ্লাস দুধে সজনে ফুল, লবন ও গোলমরিচ মিশিয়ে প্রতিদিন খেলেও আপনার ক্ষমতা বাড়বে।

২। রসুন : রক্তে শর্করা ও কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে রসুন(Garlic)। ফলে প্রতিদিনের ডায়েটে যদি রসুন থাকে তবে উত্তেজনা বাড়বে। আফ্রিকান হেলথ সায়েন্সসও এটা প্রামাণ করেছে, আদার মতোই উপকারী রসুন(Garlic)।

৩। হিং : রান্নায় আমরা হিং মেশাই। প্রতিদিন সকালে ১ গ্লাস জলে এক চিমটি হিং ফেলে খেলে আপনার কামনা বাড়বে। বিশেষজ্ঞদের মতে, যদি টানা ৪০ দিন ধরে রোজ ০.০৬ গ্রাম হিং(Asafoetida) খাওয়া যায় তাহলে পেতে পারেন সুস্থ জীবন।

৪। জিরা : জিরার মধ্যে থাকা পটাশিয়াম(Potassium) ও জিঙ্ক রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। ফলে বাড়ে উদ্দীপনা। প্রতিদিন এক কাপ গরম চায়ে জিরা ফেলে খেতে পারেন উপকার পাবেন।

৫। আদা : বিভিন্ন ক্ষেত্রে আদার উপকারিতার কথা আমাদের সবার কম-বেশি জানা। সুস্থ জীবন বজায় রাখতেও অপরিহার্য্য হতে পারে আদা। আদার মধ্যে থাকা ভোলাটাইল অয়েল স্নায়ুর উত্তেজনা বাড়ায় ও রক্ত(Blood) সঞ্চালনের মাত্রা ঠিক রাখে।

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

Close