Mizanur Rahaman Azahari 2022 | মিজানুর রহমান আযাহারি-২০২২

Mizanur Rahaman Azahari Bio | মিজানুর রহমান আযাহারি
Mizanur Rahaman Azahari | মিজানুর রহমান আযাহারি
Mizanur Rahaman Azahari | মিজানুর রহমান আযাহারি

Mizanur Rahaman Azahari Biography with Mp3 audio Waz Mahfil download facilities| মিজানুর রহমান আযাহারি এর জিবনী সাথে রয়েছে ওয়াজ মাহফিল mp3 audio অডিও ডাউনলোড সুবিধা  

মিজানুর রহমান আজহারী

বাংলাদেশি ইসলামি পণ্ডিত

মিজানুর রহমান আজহারী (২৬ জানুয়ারি ১৯৯০) একজন বাংলাদেশি ইসলামি বক্তা। ঢাকা জেলার ডেমরায় তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ইসলামি আলোচক হিসেবে তিনি জনপ্রিয় এবং একইসাথে সমালোচিত।বিভিন্ন বক্তব্যে তিনি নিজেকে মধ্যমপন্থী ইসলামী আলোচক বলে দাবি করেন।

মিজানুর রহমান আজহারী ব্যক্তিগত

জন্ম: ২৬ জানুয়ারি ১৯৯০ (বয়স ৩১) in 2021
ডেমরা, ঢাকা

ধর্ম: ইসলাম

জাতীয়তা: বাংলাদেশি

সন্তান: ২ জন

জাতিসত্তা: বাঙালি

যুগ: আধুনিক

আখ্যা: সুন্নি

প্রধান আগ্রহ

তাফসির, হাদীস, ফিকহ
উল্লেখযোগ্য কাজ
তাফসির মাহফিল
যেখানের শিক্ষার্থী
আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়,

দারুন্নাজাত সিদ্দিকিয়া কামিল মাদরাসা

প্রাথমিক জীবন

মিজানুর রহমান১৯৯০ সালের ২৬ জানুয়ারি ঢাকা জেলার ডেমরা থানায় জন্মগ্রহণ করেন। তার পৈতৃক নিবাস কুমিল্লা জেলার মুরাদনগরের পরমতলা গ্রামে। তার পিতা একজন মাদ্রাসা শিক্ষক ও মাতা গৃহিণী। ছোট বেলা থেকে তিনি মাদরাসায় পড়াশোনা করেন। পরে তিনি আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃত্তি পান। মিসরের আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার কারণে তার নামের সাথে ‘আজহারী’ উপাধি যুক্ত হয়েছে।

ব্যক্তিগত জীবন

মিজানুর রহমান ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারি বৈবাহিক সম্পর্কে আবদ্ধ হন। তার দুটি কন্যাসন্তান রয়েছে।

শিক্ষাজীবন

আজহারী দারুন্নাজাত সিদ্দিকিয়া কামিল মাদরাসা থেকে যথাক্রমে ২০০৪ সালে দাখিল ও ২০০৬ সালে আলিম পাশ করেন। তিনি উভয় পরীক্ষাতেই বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডে মেধাতালিকায় শীর্ষ স্থান অধিকার করেন। ২০০৭ সালে ইসলামি ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত মিশরীয় সরকারের স্কলারশিপ পরীক্ষায় প্রথম স্থান অধিকার করেন।

পরবর্তীতে তিনি মিশরের আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ে তাফসির ও কুরআনভিত্তিক বিজ্ঞান বিভাগে পড়াশোনা করেন।সেখান থেকে গ্র‍্যাজুয়েশন শেষ করে মালয়েশিয়ার আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমফিল ও পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তার এমফিলের গবেষণার বিষয় ছিল ‘হিউম্যান এম্ব্রায়োলজি ইন দ্য হোলি কুরআন’ (পবিত্র কুরআনে মানব ভ্রূণবিদ্যা)।

তারপর একই বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি প্রার্থী হিসেবে মনোনীত হন। তিনি ‘হিউম্যান বিহ্যাভিয়ারেল ক্যারেক্টারইসটিক্স ইন দ্য হোলি কুরআন অ্যান্ড অ্যানালিটিক্যাল স্টাডি’ (পবিত্র কুরআন ও বিশ্লেষণী গবেষণায় মানব আচরণগত বৈশিষ্ট্য)-এর ওপর পিএইচডি গবেষণা করছেন।

কর্মজীবন

আজহারী ২০১০ সালে ইসলামি গজল ও কিরাত দিয়ে তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন। পরে তিনি এটিএন বাংলা টিভির একটি ইসলামি অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। ২০১৫ সালের শুরুর দিকে তিনি ওয়াজ-মাহফিল নিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন। বৈশাখী টেলিভিশনে ‘ইসলাম ও সুন্দর জীবন’ শিরোনামের একটি অনুষ্ঠান করেছেন।

জনপ্রিয়তা

ইসলাম ধর্মের অনুশাসন মেনে চলেও নিজেকে সমসাময়িকভাবে উপস্থাপন করা ও কুরআন-হাদিস বিষয়ক সহজ-সাবলীল ও গবেষণাধর্মী আলোচনার কারণে অল্প সময়ে তিনি বাংলাদেশের মুসলিম বিশেষত মুসলিম তরুণ সম্প্রদায়ের কাছে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। তার মাহফিলে প্রায়শই তার মাধ্যমে বিভিন্ন ভিন্ন ধর্মাবলম্বী ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হন। তার তাফসির মাহফিলে সাধারণ মুসলিম ও তরুণদের ব্যাপক জনসমাগম দেখা যায়।

সমালোচনা

২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে ১২ জন ভারতীয় হিন্দু অবৈধ ভিসায় বাংলাদেশে এসে তার হাতে ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম হলে তিনি গণমাধ্যমে সমালোচিত হন। দেশবিরোধী বক্তব্যের অভিযোগ এনে বিভিন্ন স্থানে তার মাহফিল এক ও একাধিকবার নিষিদ্ধ হয়েছে। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে তাকে দেশবিরোধী মন্তব্য প্রদানকারী বলে এক সাংসদ কর্তৃক দাবি করা হয়। একই সময়ে ‘‘ঘরে ঘরে সাঈদীর জন্ম হোক’’ বলে মন্তব্য করায় বাংলাদেশের সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ তাকে "বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামীর প্রোডাক্ট" বলে অভিহিত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে মন্তব্য করেন। Mizanur Rahman Azhari      

সম্মাননা

ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ আল-আজহার বৃত্তি
প্রথম স্থান, ২০০৭
আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয় বৃত্তি
পূর্ণ স্নাতক বৃত্তি, ২০০৮

মিজানুর রহমান আযাহারি - সবাই তাকে এক নামেই চিনি, ইসলামের আসল রহস্য যিনি যোবক ভাইদের কাছে খুবি সহজ ও সুন্দর ভাষায় তুলে ধরেন তিনিই আমাদের বাংলাদেশের "মিজানুর রহমান আযাহারি" তিনি খুব অল্প সময়েই তার মেধা দিয়ে ইসলামের দাওয়াত প্রচার করেছেন। এবং জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছেন। 

মিজানুর রহমান আযাহারি এমন একজন মানুষ যিনি মুসলমানদের ঐক্য রচনা করার চেষ্টা করে থাকেন। তার ওয়াজ এর ভাষা এতটাই পরিমার্জিত যে, হিন্দু, বৌদ্ধরা পর্যন্ত তার মাহফিল পছন্দ করে থাকেন। অনেকটা জাকির নায়েকের মতো বুঝানোর চেষ্টা করে থাকেন মিজানুর রহমান। যা সবার কাছে বুঝতে ভালো লাগে।

আমরা লক্ষ করে থাকি যে, বাংলাদেশে ইসলাম প্রচারের জন্য অধিকাংশ মাওলানা ওয়াজ করে থাকে গানের মতো করে, যা আমাদের মুসলমানদের কাছে ভালোই লাগে। কিন্তু অমুসলিমদের বেশির ভাগ মানুষ এটা মনের মধ্যে নেয় না কারন একঘেয়ে ব্যাপার! 

যারা ইসলামের শান্তি চায় তারা কিন্তু সহজ ভাষায় বুজতে চায়। যেমন ভাবে সারা পৃথিবিতে ডাঃ জাকির নায়েকে লেকচার দিয়ে অগনিত বিধর্মীদের ইসলামের পথে এনেছেন। এ ভাবেই দাওয়াত প্রচার করা প্রয়োজন সাবলীল ভাষায়। যেন সবাই শুনতে আগ্রহ প্রকাশ করে।

মিজানুর রহমান আযহারি ঠিক এমন ভাবেই লেকচার দিয়ে থাকেন যার ফলে খুব দ্রুত জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পেরেছেন। 

সুত্রঃ Wikipedia Bangla.

Thanks all.  
close